রম্বিতে তখনো দোকান পাট সব খোলেনি। দার্জ্জিলিং অবধি পাহাড়ের রাস্তা চওড়া করার কাজ চলছে। রম্বির কাছে রাস্তা দু লেনের। বাঁদিক চেপে অল্টোটা রেখে সামনের সদ্য খোলা দোকানটার দিকেই হাঁটা দিলাম।

“চা পাওয়া যাবে?” মঙ্গোলিয় গোল মুখ বৌদির। সবে দোকান খুলছেন। আমাদের ঘুম জড়ানো হাসি মুখে স্বাগত জানালেন।

বসার জায়গাটা বেশ বাহারের। পাশেই কলকাতার দিলখুশার স্টাইলে ছোটো ছোট কেবিন। সামনে পর্দা ফেলা। প্রেম করার জন্য আদর্শ জায়গা। বৌদি প্রথমেই দুটো মস্ত কেতলি দিয়ে গেলেন। খাওয়ার জল। তারপর এলো ধুমায়িত চা।

সকাল খুব উজ্জ্বল। আমরা চালসার চা বাগানের ভেতর একটা রিসোর্টে আছি। সারারাত আগুন জ্বেলে আড্ডা হয়েছে। সকাল অবধি সকলে জেগে থাকতে পারেনি। আমাদের দু’জনের চোখে কিন্তু ঘুম একেবারেই নেই।

‘চল চা খেয়ে আসি’ বলে সেই যে দুজন বেরিয়েছি, সিধা সেভক হয়ে পাহাড়ের গায়ে গাড়ি চাপিয়ে দিতে দুবার ভাবিনি। অথচ ভাবার কথাই ছিল। আমি সমতলে গাড়ি চালিয়ে অভ্যস্ত। পাহাড়ের রাস্তা একবারেই অন্য রকম। তার ওপর অল্টো নিয়ে যাচ্ছি। গোদের ওপর বিষফোঁড়া হল সারারাত জেগে থাকা। তবু ভাবিনি। চোখে, শরীরে তখন অভিযানের উত্তেজনা।

চালসা থেকে গরুমারা অভয়ারণ্যের মধ্যে দিয়ে মালবাজার হয়ে সেভক। রাস্তার অবস্থা অসাধারণ। মালবাজার পৌঁছনোর এক কিলোমিটার আগে সেই অসাধারণ মুহুর্তটা। প্রায় শ’খানেক সাদা পাখি, হতে পারে বক, হতে পারে অন্য কিছু, প্রায় আকাশ ঢেকে দিয়ে উড়ে যাচ্ছে। তাদের শরীর থেকে রোদ ঠিকরে এসে পড়ছে আমাদের চোখে মুখে। শিরায় উপশিরায় বইয়ে দিচ্ছে রোমাঞ্চের উল্লাস। নীচে চা বাগানের সবুজ। ওপরে আকাশের  নীল। আর মাঝখানে শঙ্খচিল।

না পাখি গুলো সম্ভবত শঙ্খচিল নয়।

তবু।

(ছবি তুলেছে সায়নী বিশ্বাস)

Join the Conversation

1 Comment

  1. evabei hoi shamil jeno tomar kachhei ontomil
    evabei chai tomae jemon aakashta chae shankhachil
    aaj roopkothader chhilo golpo koto
    gaaner poth dhore taai..
    kotha tomake shonai..

    Like

Leave a comment

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: