সুমন্ত্র আর তপোধীরের প্রথম সমাধান

১। একটি খুনের ঘটনা


সুমন্ত্র আমায় রাত দুটোয় মেসেজ করল, ‘চলে আয় বাগবাজারে। ভোর দেখতে ইচ্ছে করছে।’

Continue reading “সুমন্ত্র আর তপোধীরের প্রথম সমাধান”

Advertisements

খড়কুটোর ওড়না

পাকিস্তানি তরুণীর মাথায় কালো টুপি, পরণে লাল কোট। আর পাঁচটা দিনের মতই সে কিঞ্চিৎ ‘নাচিতে নাচিতে’ আসছিল আমাদের ফ্ল্যাটবাড়িতে।

Continue reading “খড়কুটোর ওড়না”

চে

কার মৃত্যু আমায় অপরাধী করে দেয়?
শুকনো হয়ে আসা ঠোঁটে
কে আঙুল বুলায়?
উপত্যকায় মৃত্যু নেমে এলে
কবে আমিও দাঁড়াই, 
কোন জঙ্গলে, মাইনে, ময়দানে, আমিও থমকাই।
শিরদাঁড়া ভর দিয়ে (যতটা আছে বাকি),
কার জন্যে আমিও আজও প্রণয় মিছিলে রাখি?
কিছুটা পৃথক হয়ে সীমন্তেতে লাল,
সাতটি রঙের ঘোড়ায় রেখেছি কাদের কঙ্কাল?

সুসময়

সেও তো পারত কিছু।
পারা না পারার অন্তর্ঘাত আবার নিচ্ছে পিছু।
সামনে এখন বিনম্র দিন,
মগজে এখন ক্ষয় সীমাহীন,
চোখ বুজলেই অচেতন হই, এমনই সুসময়,
কে যেন তবুও পেছন আঁকড়ে বলছে এখনই নয়।

Continue reading “সুসময়”